Category: বাংলা সাহিত্যের মধ্যযুগ

ব্রজবুলি

ব্রজবুলি কী ? নাম শুনে এটা ভাবা ঠিক হবে না যে এটি ব্রজধামের ভাষা। ‘কাঞ্চনজঙ্ঘা যেমন কাঞ্চন বাবুর জংঘা নয়’ সেরূপ ব্রজবুলিও ব্রজের বা ব্রজধামের ভাষা নয়। ব্রজধামের
Read More

চণ্ডীদাস সমস্যা

চণ্ডীদাস সমস্যা কী? মধ্যযুগে বাংলা সাহিত্যে তিনজন চণ্ডীদাসের আবির্ভাব ঘটেছিল। একজন শ্রীকৃষ্ণকীর্তন কাব্যের বড়ু চণ্ডীদাস, দ্বিতীয়জন বৈষ্ণব পদাবলীর দ্বিজ চণ্ডীদাস তৃতীয়জন দীন চণ্ডীদাস। এই তিনজন কবির জন্মস্থান, কাল
Read More

শ্রীকৃষ্ণকীর্তন কাব্য

শ্রীকৃষ্ণকীর্তন কাব্যে গ্রামীণ জীবনের কী পরিচয় পাওয়া যায় তা লিখুন। চণ্ডীদাস সমস্যা কী? বড়ু চণ্ডীদাস রচিত কাব্যটির নাম লিখুন। এ কাব্যের ভাব ও ভাষা কীরূপ? শ্রীকৃষ্ণকীর্তন কাব্যের রচয়িতা
Read More

কোরআন শরিফ

কুরআনের অনুবাদ প্রকাশ ভাই গিরিশচন্দ্র সেন অনুবাদক হিসেবে মোটামুটি প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর তিনি কুরআনের অনুবাদের কাজ শুরু করেন। তিনি পর্যায়ক্রমে মোট ১২ টি খন্ডে এই অনুবাদকর্ম সমাপ্ত করেন।
Read More

ভাই গিরিশচন্দ্র সেন

ভাই গিরিশচন্দ্র সেন বর্তমান নরসিংদী জেলার পাঁচদোনা গ্রামে এক বিখ্যাত দেওয়ান বৈদ্যবংশে জন্মগ্রহণ করেন। গিরিশচন্দ্র সেন (জন্ম: ১৮৩৪ – মৃত্যু: ১৯১০)। ভাই গিরিশচন্দ্র সেন নামে তিনি অধিক পরিচিত।
Read More

মহাভারত

মহাভারত সংস্কৃত ভাষায় রচিত প্রাচীন ভারতের দুটি প্রধান মহাকাব্যের অন্যতম (অপরটি হল রামায়ণ)। এই মহাকাব্যটি হিন্দুশাস্ত্রের ইতিহাস অংশের অন্তর্গত। মহাভারত-এর মূল উপজীব্য বিষয় হল কৌরব ও পাণ্ডবদের গৃহবিবাদ
Read More

মালাধর বসু

দুটি বিখ্যাত সংস্কৃত গ্রন্থ ভাগবত পুরাণ এবং রামায়ণ মধ্য বাংলা সাহিত্যের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিল । মালাধর বসুর শ্রীকৃষ্ণ বিজয় (শ্রীকৃষ্ণ বিজয়, লর্ড কৃষ্ণের বিজয়), যা মূলত
Read More

ভাগবত

ভাগবত (“ভগবান” শব্দের বর্ধিত রূপ; শব্দার্থ “ভগবান-সম্পর্কিত”) হিন্দুধর্মের একটি দার্শনিক ধারণা। এই ধারণায় ভক্তি হল পূজার প্রাথমিক উপাদান। “ভগবৎ” শব্দের অর্থ “পূজনীয়” এবং “ভাগবত” শব্দের অর্থ হল “যিনি
Read More

অনুবাদ সাহিত্য

মধ্যযুগের বাংলা সাহিত্যের বিস্তৃত অঙ্গন জুড়ে অনুবাদ সাহিত্যের চর্চা হয়েছিল এবং পরিণামে এ সাহিত্যের শ্রীবৃদ্ধিসাধনে অনুবাদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা অপরিসীম। সকল সাহিত্যের পরিপুষ্টিসাধনে অনুবাদমূলক সাহিত্যকর্মের বিশিষ্ট ভূমিকা আছে। বাংলা
Read More

নিরঞ্জনের উষ্মা

নিরঞ্জনের রুষ্মা বা নিরঞ্জনের উষ্মা হলো শূন্যপুরাণ নামক কাব্যের অন্তর্গত অংশবিশেষ বা কবিতা। এ কবিতায় বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী সধর্মীদের ওপর বৈদিক ব্রাহ্মণদের অত্যাচারের কাহিনী বর্ণনার সঙ্গে মুসলমানদের জাজপুর প্রবেশ
Read More