Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

রাজনৈতিক দলের বিভিন্ন রূপ

এক দলীয় ব্যবস্থা
কোন দেশের যদি সাংবিধানিক ভাবে একটি মাত্র দল থাকে তখন তাকে এক দলীয় শাসন ব্যবস্থা বলে। এক দলীয় শাসন ব্যবস্থায় আইন করে অন্য দলকে নিষিদ্ধ করা হয় অথবা সীমিতভাবে তাদেরকে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করতে দেওয়া হয়। দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের আগে জার্মানিতে হিটলারের নাৎসিদল, মুসোলিনির ফ্যাসিস্ট দল- এক দলীয় ব্যবস্থার উদাহরণ। ফ্যাসিবাদ ও নাৎসিবাদের মূল কথা ‘ রাষ্ট্রের জন্য জনগণ, জনগণের জন্য রাষ্ট্র নয়। এই ব্যবস্থাগুলোতে উগ্র ধনতান্ত্রিক শোষণ-নির্যাতন চলে। চিন, কোরিয়া, কিউবা, ভিয়েতনাম ইত্যাদি রাষ্ট্রে ও এক দলীয় ব্যবস্থা বিদ্যমান। কিন্তু এ সমস্ত দেশে সমাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হওয়ায় শোষণ ও নির্যাতনহীন সমাজ প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব।

এক দলীয় ব্যবস্থা বৈশিষ্ট্য
এক দলীয় ব্যবস্থায় একজন সকল শাসনকাজ পরিচালনা করে থাকেন। তিনি রাষ্ট্রের সর্বময় কর্তা এবং চরম ক্ষমতার উৎস, ক্ষমতা প্রয়োগে কেউ তাঁকে বাধা দিতে পারে না। তাঁর আদেশ নির্দেশ সকলে মেনে চলতে বাধ্য। এ শাসন ব্যবস্থায় তিনি দ্রুত যেকোন ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেন। তাঁকে কারো কাছে জবাবদিহি করতে হয়না এবং আলোচনাও করতে হয়না বলে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেয়া ও কাজ করা তাঁর পক্ষে সম্ভব হয়। নেতা তাঁর বলিষ্ঠ নেতৃত্বে অনুন্নত দেশকে অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নতি ও অগ্রগতির পথে নিয়ে যেতে পারেন। তিনি তাঁর নেতৃত্বে শিল্প, সাহিত্য ও বিজ্ঞানের উন্নতি সাধন করতে পারেন। এক দলীয় শাসন ব্যবস্থার অধীনে সারা দেশ একইভাবে পরিচালিত হয় বলে জাতীয় ঐক্য ও সংহতি দৃঢ় হয়।
এক দলীয় শাসন ব্যবস্থা অত্যন্ত ভাল ব্যবস্থা হিসাবে পরিগণিত হবে যদি শাসক গোষ্ঠীর সদিচ্ছা থাকে।

দ্বি দলীয় ব্যবস্থা
নির্বাচন কালে যখন কোন দেশে প্রধানত দুটি বৃহৎ রাজনৈতিক দলের মাঝে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়, সংখ্যা গরিষ্ঠ দল ক্ষমতা গ্রহণ করে ও সংখ্যা লঘুদল বিরোধী দল গঠন করে, তখন তাকে দ্বি দলীয় ব্যবস্থা বলে। যেমন যুক্তরাষ্ট্রের- ডেমক্রেটিক পার্টি ও রিপাবলিকান পার্টি। যুক্তরাজ্যের রক্ষণশীল দল ও শ্রমিক দল, জ্যামাইকার জ্যামাইকা লেবার পার্টি ও পিপলস ন্যাশনাল পার্টি দ্বি দলীয় ব্যবস্থার উদাহরণ।

বহু দলীয় ব্যবস্থা
সংসদীয় পদ্ধতির ক্ষেত্রে বহুদলীয় ব্যবস্থা বেশি দেখা যায়। যে ব্যবস্থায় কোন দেশের নির্বাচনে অনেক গুলো দল অংশগ্রহণ করে এবং সংখ্যাগরিষ্ঠ তথা বিজয়ী দল হওয়ার জন্য কার্যকর ভূমিকা পালন করে। তাক বহু দলীয় ব্যবস্থা বলে। বহু দলীয় ব্যবস্থায় কোন রাজনৈতিক দল একক সংখ্যা গরিষ্ঠতা না পেলে তারা সমমনা দল দিয়ে সম্মিলিত সরকার গঠন করতে পারে। বাংলাদেশ, আর্জেন্টিনা, অস্ট্রিয়া, বেলজিয়াম, ব্রাজিল ইত্যাদি দেশে বহুদলীয় ব্যবস্থা বিদ্যমান।

Add a Comment